Wednesday 2nd of December, 2020 | 6:33 AM

করোনা ভাইরাস এ যেন মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে প্রকাশ্য আযাব!

মোঃ শরিফুজ্জামান
  • রবিবার, ১৯ এপ্রিল, ২০২০
করোনা ভাইরাস এ যেন মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে প্রকাশ্য আযাব!
-মোঃ নাজমুল ইসলাম 
আমাদের আর কারো জানার বাকি না থাকার কথা যে, করোনা নামক ভাইরাসে তামাম পৃথিবী তথা ২১০টি দেশ আজ গৃহবন্দী। প্রাণ হারিয়েছে প্রায় দুই লক্ষাধীক মানুষ। আর আমরা যারা বেচেঁ আছি আমাদের আরো কিছুদিন বেচেঁ থাকার আকুতিটাও কিন্তু কম না। আমরা দেখেছি ইতালিয়ানদের আকুতি, আকুতি দেখেছি চীন, নিউইয়র্ক, ফ্রান্স, বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র অ্যামেরিকাসহ বিশ্ব নবীর মাতৃভূমি সৌদি আরবের। আমরা যারা মন্ত্রী আমলারা আছি যারা দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর ভরসা না করে পারি জমাতাম বিলেতে সেই বিলেত কিন্তু আজও আবিস্কার করতে পারলো না করোনার কোন মেডিসিন। আর নয় এবার আসুন দেখে নেই পবিত্র কুরআন কি বলছে, মহামারী এই করোনা কি সাধারণ কোন অসুখ নাকি আল্লাহর পক্ষ থেকে আসা কঠিন আযাব,
মহান আল্লাহ বলেন,
“মানুষের কৃতকর্মের দরুন স্থলে ও সমুদ্রে ফাসাদ প্রকাশ পায়। যার ফলে আল্লাহ তাদের কতিপয় কৃতকর্মের স্বাদ তাদেরকে আস্বাদন করান, যাতে তারা ফিরে আসে।” সুরা -রুম- ৩১
কুরআনের এ অায়াত যদি সত্যি হয় তাহলে মনে হয়, এ কথা মেনে নিতে আর কারো আপত্তি থাকার কথা নয় যে, করোনা আমাদের কৃতকর্মের ফল।
তাহলে কথা হলো, এ করোনা থেকে মুক্তির কি কোন উপায় নাই?
অবশ্যই আছে এমন কোন রোগ আল্লাহ দেননি যার প্রতিশেধক আল্লাহ পাঠাননি।
এবার আমরা জানবো পবিত্র কুরআন এ-এর কোন প্রতিশেধক আছে কি না,
মহান আল্লাহ বলেন,
আর অবশ্যই আমি আযাব দ্বারা পাকড়াও করলাম, তবুও তারা তাদের রবের কাছে নত হয়নি এবং বিনীত প্রাথনাও করেনা। (সুরা-মু’মিনুন-৭৬)
তাহলে বুঝা গেলো আমাদেরকে আমাদের কৃতকর্মের জন্য আল্লাহর কাছে তওবা করতে হবে এবং ক্ষমা প্রাথনা করতে হবে।
তাহলে কথা হলো আমরা কি তওবা করতে পেরেছি?
আফসোস! এ জাতির জন্য যে সময় অন্য দেশগুলো লাশ গুনতে গুনতে ক্লান্ত,
তখন আমার দেশের সোনার মত নিষ্পাপ মানুষ গুলো চাল চুরির মত মহৎ কাজে ব্যস্থ।
এর বিনিময়ে আল্লাহ আমাদের কি দেবেন জানার ইচ্ছা করেনা আপনদের?
তাহলে দেখুন আল্লাহ কি বলেন,
অবশষে আমি যখন তাদের জন্য কঠিন আযাবের দুয়ার খুলে দেই তখনই তাতে তারা হতাশ হয়ে পরে। (সুরা-মু’মিনুন- ৭৭)
আমরা কি হতাশ হয়নি? স্বীকার করতে আমাদের একটু কষ্ট হচ্ছে কারণ আমরা তো করোনার চাইতও বেশি শক্তিশালী কি বলেন তাই না?
তাই বলি হোমকোয়ারেন্টইনে থাকেন, সাবান পানি দিয়ে হাত ধুয়ে নেন, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলেন, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার খান,বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ মেনে চলেন সমস্যা নাই উপকার হবে কিন্তু মনে রাখতে হবে তওবা করে মহান আল্লাহর দিকে ফিরে না গেলে এসব কিছুই আমাদের বাঁচাতে পারবে না।
মহান আল্লাহ আমাদের সবাইকে মহামারী করোনা নামক আযাব থেকে হেফাজত করুন।
মোঃ নাজমুল ইসলামের ফেসবুক থেকে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
©  2019 All rights reserved by  dailydinajpur.com
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo