Monday 30th of November, 2020 | 4:17 PM

জনপথ শূণ্য জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্বহীনতা  

মোঃ শরিফুজ্জামান
  • বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০
জনপথ শূণ্য জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্বহীনতা 

জুবায়ের আহমেদ জীবন, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ লকডাউন ঘোষণার পর দিনাজপুরের বিভিন্ন সড়ক জনমানবহীন বিরান জনপদে পরিণত হয়েছে। আজ রোববার (১৯-৪-২০২০) দিনাজপুর শহর, কলেজমোড়- দশমাইল- রাণীরবন্দর- কাচিনীয়া বাজারসহ প্রভৃতি স্থান সরেজমিনে জনমানবহীন অবস্থায় দেখা যায়। তবে জীবিকার তাগিদে অনেকেই যত্রতত্র চলা ফেরা করছেন; বেশ কিছু স্থানে অপেক্ষা করে দেখা যায় প্রশাসনের আসার খবর পেলেই জোটবদ্ধতা থেকে ছুটাছুটি করে পালিয়ে যাচ্ছেন। প্রশাসনিক বাহিনী চলে গেলে পূণরায় জোটবদ্ধ হচ্ছেন।

সরকার লকডাউন করল করোনা থেকে সুরক্ষার জন্য কিন্তু আপনারা সরকারের নির্দেশ মানছেন না কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তাদের একজন জানায়, ‘আমরা কি এমনি এমনি বের হইছি! না বের হলে বাড়িতে বউ-বাচ্চাকে কি খাওয়াবো? সরকার তো কত কোটি টাকা যেন দিল তার সিকি পয়সাও আমরা পেলাম না তাহলে বের না হয়ে কি করব?’ নতুন ভূষির বন্দরে একজন জানায়, ‘সরকার ত্রাণ দিলে আমাদের দেওয়ার জন্য কিন্তু আজ পর্যন্ত আমরা কিছুই পাইনি।’

সাগর (ছদ্মনাম) নামের শিক্ষিত যুবক ডেইলি দিনাজপুর ডট কম’কে বলেন, ‘আমাদের দিনাজপুর জেলা যে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে আমরা জানতামি না যদিনা তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের মাইকিং শুনতে না পেতাম। আর লকডাউন মানার কথা বলছেন আমাদের ওয়ার্ড মেম্বারা ও চৌকিদাররাই ঠিক মতো মানে না তাহলে তাদের জনগন কিভাবে মানবে!’ ওয়ার্ড মেম্বার, চৌকিদাররাই মানেনা বলতে আপনি কি বোঝাতে চাচ্ছেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘মানেনা বলতে তারা নিজেরাই মাস্কহীন হয়ে ঘুরছেন, ৫/৭জনের লোক সমাগম করছেন। তাছাড়া এই করোনা ভাইরাসের শুরু থেকে আজ অবধি আমাদের ২নং সুন্দরবন ইউনিয়নের উদ্যোগে কোন সচেতনতামূলক মাইকিং, পোস্টারিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়নি।’ তার কাছ থেকে এমন তথ্যের ভিত্তিতে ইউনিয়ন পরিষদ সংশ্লিষ্ট বক্তির সাথে কথা বললে (নাম না প্রকাশের শর্তে) তিনি বলেন, ‘ইতিপূর্বে যত (গত দুই- তিনকে ইঙ্গিত করে) চেয়ারম্যান ছিল তাদের সময়ও একই ঘটনা ঘটেছে। মাইকিং না করেও শেষে দেখা যায় মাইকিং বাবদ চার/পাঁচ হাজার টাকা ভাউচার দেখানো হয়।’

এদিকে তেঁতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের করোনা সংক্রান্ত সচেতনতামূলক প্রচাণায় অনেকেই মুগ্ধ হয়ে চেয়ারম্যানকে সাধুবাদ জানান। তাদের বক্তব্য, করোনার শুরু থেকেই ইউনিয়ন পরিষদ নানাভাবে সচেতনতামূলক প্রচারণা করছে। এই সচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্যোগ নেওয়ার জন্য আমরা চেয়ারম্যানকে ধন্যবাদ জানাই।
গত ১৫ই এপ্রিল দিনাজপুর জেলা প্রশাসক কতৃক ঘোষনার মাধ্যমে সমগ্র দিনাজপুর জেলা লকডাউন করা হয়। এরপর থেকেই জেলার সড়কগুলোতে যান চলাচল শিথিল হয়। তবে খুব জরুরী প্রয়োজনে যারা ঘরের বাইরে বের হচ্ছে তারা পড়ছেন বিপাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
©  2019 All rights reserved by  dailydinajpur.com
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo