Sunday 20th of June, 2021 | 3:29 PM

দিনাজপুর শহর যেন আরেক ৪৭

ডেইলি দিনাজপুর
  • মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
মোঃ তাফহিমুল ইসলাম, দিনাজপুরঃ ১৪ ই এপ্রিল এ যেন আরেক ৪৭ কিংবা ১৯৭১ সাল। যে যেদিকে পারে সেদিকেই ছুটছে বাঁচার জন্য, অজানা শত্রুর হাত থেকে নিস্তার পাওয়ার জন্য। সবার চোখে-মুখে এক অজানা আতঙ্ক ভর করছে মনে হয়। এখনই না গেলে অজানা সেই আতঙ্ক গিলে ফেলবে সবাইকে। যে আগে যেতে পারবে সেই প্রথমে নিস্তার পাবে অজানা সেই আতঙ্ক থেকে। এই অজানা আতঙ্ক সে ৪৭ সালের দেশভাগ কিংবা ৭১ সালের পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বা রাজাকারের  হাত থেকে নিস্তার পাওয়ার জন্য নয়। অজানা আতঙ্ক হচ্ছে চীনের উওহান প্রদেশ থেকে উৎপত্তি হওয়া করোনা ভাইরাস কে কেন্দ্র করে।
এমনই অজানা আতঙ্ক ভর করেছে দিনাজপুর শহরে বসবাস করা সাধারণ মানুষের চোখে মুখে। ১৪ এপ্রিল থেকে আবারো লকডাউনের ঘোষণায়  মানুষের ঢল নেমেছে শহরের রাস্তা ঘাট ও হাট বাজারে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই শহরের রাস্তাঘাট গুলোতে ব্যাপক ভীড় লক্ষ করা গেছে। শহরের হাসপাতাল মোড়,

বাহাদুর বাজার, লিলির মোড়, মডার্ণ মোড়, নিমতলা, চারুবাবুর মোড়, কালিতলাসহ
শহরের সকল সড়ক অটোসহ বিভিন্ন যানবাহনে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। এসময় শহরের মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক পুলিশকে ভীড় সামলাতে ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছেে।ভীড় ছিলো ব্যাংকের সকল শাখাগুলোতেও। ব্যাংকগুলোতে যেন মানুষের স্থান সংকুলান হচ্ছিল না। শহরের বাজার ঘাট ও বীপণী বিতানগুলোতেও ভীড় ছিলো চোখে পড়ার মত। অনেকেই মুখে মাস্ক পরিধাণ করে থাকলেও নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান বা স্বাস্থ্য বিধি মানার কোন কোন প্রবণতা ছিলোনা কারো মাঝেই। শহর থেকে সকল মানুষ প্রতিযোগিতায় নেমেছে নিজস্ব গন্তব্যে  পৌঁছাতে।

দিনাজপুর শহরের বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের সাথে কথা বললে তারা জানায়, সকাল থেকে রাস্তায় প্রচুর জ্যাম, মানুষ কোন কথা শুনছেনা। নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না । যে যার মত আগে যেতে পারে সেভাবেই চলে যাচ্ছে এতে করে প্রচুর যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।
এদিকে  দিনাজপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ২৭ জনসহ এ পর্যন্ত  মোট ৫১০৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। একই সময়ে নতুন ১৯ জনসহ এ পর্যন্ত ৪৭০৭ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ১০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আক্রান্ত ৫০৪৬ জনের মধ্যে ৪৭৪১ জন সুস্থ ও ১০৪ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে দিনাজপুর জেলায়
করোনায় আক্রান্ত রোগির সংখ্যা রয়েছে ২৫৮ জন।
দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, রবিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুর ১১টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় ১৩৯ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৭ জনের দেহে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫১০৩ জনে পৌঁছেছে। আক্রান্ত ২৭ জনের মধ্যে সদর উপজেলাতেই ১৯ জন।
এছাড়া চিরির বন্দর দুই জন, বোচাগঞ্জে তিনজন, বীরগঞ্জ, খানসামা, পার্বতীপুুুর একজন। একই সময়ে নতুন ১৯ জনসহ এ পর্যন্ত ৪৭৪১ জন সুস্থ হয়েছেন। আর এ পর্যন্ত ১০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার আক্রান্তের হার ছিল ৩৮ দশমিক ০২ শতাংশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
©  2019 All rights reserved by  dailydinajpur.com
Theme Dwonload From Ashraftech.Com
ThemesBazar-Jowfhowo